এমপিওভুক্তির দাবির পক্ষে সংসদে যা বললেন এবার দুই এমপি


এম আনোয়ার হোসেন নিশি :- শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির দাবির পক্ষে সমর্থন দিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ও মোহাম্মদ নাসিম। তিনি শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির বিষয়ে আওয়ামী লীগ সরকারের গত মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া প্রতিশ্রুতি চলতি অর্থবছরেই বাস্তবায়নের আহ্বান জানান।

সোমবার রাতে জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে ফ্লোর নিয়ে তিনি এই আহ্বান জানান। এ ব্যাপারে তিনি শিক্ষা ও অর্থমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। জাসদ সভাপতি ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী হাসানুল ইনুও ফ্লোর নিয়ে একই দাবি জানান।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিশাল বিজয় নিয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ আবারও ক্ষমতায় এসেছে। নির্বাচনের আগে দেওয়া প্রতিশ্রুতিসমূহ এখন বাস্তবায়নের সময় এসে গেছে। আমরা সবাই দেখেছি, নির্বাচনের আগে লাখ লাখ শিক্ষক এমপিওভুক্তির দাবিতে আন্দোলন করেছেন। তখন প্রধানমন্ত্রী তাদেরকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। এমপিওভুক্তির জন্য দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে কয়েক মাস আগে তালিকা পাঠানো হয়েছে। এমপিওভুক্তির জন্য তিন হাজার কোটি টাকার মতো লাগে। আগের অর্থমন্ত্রী বলেছেন চার হাজার কোটি টাকা লাগবে। নতুন অর্থমন্ত্রীকে অনুরোধ করবো- চলতি অর্থবছরেই এই অর্থ বরাদ্দ দিন। এই অর্থবছরেই প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে হবে। নইলে ওয়াদা ভঙ্গ করা হবে।

নাসিম আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শিক্ষা ও শিক্ষকবান্ধব। এই শিক্ষকরা নির্বাচনে আমাদের সহযোগিতা করেছেন। এটা ভুলে গেলে চলবে না। আমরা নতুন যোগ্য শিক্ষামন্ত্রী পেয়েছি। অভুক্ত শিক্ষকদের দেওয়া ওয়াদা পূরণ করুন। এই সংসদে সরকারি ও বিরোধী দলের সকল এমপি এই দাবীর পক্ষে। অর্থমন্ত্রীকে অনুরোধ করবো আর আমলাতান্ত্রিক জটিলতা সৃষ্টি না করে দ্রুত প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করুন।

পরে মোহাম্মদ নাসিমের বক্তব্যকে সমর্থন করে পয়েন্ট অব অর্ডারে জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেন, শিক্ষাখাতে গত ১০ বছরে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে অভূতপূর্ব বিস্তার ঘটেছে। অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। লক্ষাধিক প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ হয়েছে। কোটি কোটি টাকা এই খাদে বিনিয়োগ হয়েছে। কিন্তু এমপিওভুক্তির দাবি উপেক্ষিত রয়েছে। গত ১০ বছরে আমরা সংসদে একথা বহুবার বলেছি। তবে অর্থমন্ত্রী অর্থ বরাদ্দ করেননি। এখন এখানে নজর দেওয়ার সময় এসেছে। শিক্ষকদের জীবনমান ও দক্ষতা বৃদ্ধির সময় এসেছে। এর জন্য প্রথম পদক্ষেপ হচ্ছে এমপিওভুক্তি।

তিনি বলেন, শিক্ষকদের দক্ষতা বৃদ্ধি জাতীয় কর্তব্য। শিক্ষাখাতে বিনিয়োগ কখনও বিফলে যায় না। ২০২১ সালের লক্ষ্য অর্জন করতে হলে এবং দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তুলতে হলে শিক্ষকদের দক্ষ করে তুলতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here